Main Menu

এই ৭টি জিনিস ভুলেও ড্রেইনে ফেলবেন না

ড্রেইন জমে যাওয়া খুবই বিরক্তিকর একটি সমস্যা। ড্রেইন নোংরা করার জন্য আমরা নিজেরাই দায়ী। আমাদের কিছু কাজ এর জন্য দায়ী। অসাবধানতার বশে আমরা কিছু জিনিস ড্রেইন ফেলে থাকি, যার জন্য ড্রেইন আটকে যায়। যার কারণে পানি বের হতে পারে না। একটু সর্তক থাকলে এই সমস্যা থেকে বের হওয়া যায়। এই জিনিসগুলো ড্রেইন দিয়ে ফেলার আগে একবার ভাবুন।

১। রান্নায় ব্যবহৃত তেল

রান্নায় ব্যবহৃত তেল অথবা গ্রিজ ড্রেইন দিয়ে ফেলা থেকে বিরত থাকুন। এটি ড্রেইন বন্ধ করে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট। অসাবধানতাবশত যদি কিছু তেল ড্রেইনে দিয়ে চলে যায়। তবে গরম পানির সাথে ভিনেগার এবং বেকিং সোডা মিশিয়ে নিন। এটি ঢেলে দিন পাইপের ভিতরে। দেখবেন ড্রেইন পরিষ্কার হয়ে গেছে।

২। পাস্তা এবং ভাত

পাস্তা সিদ্ধ করে তা পানি দিয়ে ধোয়ার সময় কিছু পাস্তা বা তার অংশ বিশেষ ড্রেইনে চলে যায়। ভাত এবং পাস্তা মাড় জনিত খাবার। এই জন্য এটি জমাট বেঁধে থাকে। যা সহজে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলা সম্ভব হয় না। তাই পাস্তা এবং ভাত ধোয়ার সময় সাবধান থাকুন।

৩। হাড়

মাংসের বড় হাড়ের কথা বলা হচ্ছে না। ছোট ছোট হাড়ও ড্রেইন বন্ধ করে দিতে পারে। অনেক সময় মাংসের চিবানো হাড়ের গুঁড়ো থালা বাসন ধোয়ার সময় ড্রেইনে চলে যেতে পারে। এর পরিমাণ বেশি হয়ে গেলে ড্রেইন বন্ধ হয়ে যাবে।

৪। আঁশযুক্ত খাবার

আঁশযুক্ত যেকোনো সবজি ধোয়ার সময় সাবধানতা অবলম্বন করা উচিত। সবজির আঁশ ড্রেইন বন্ধ করে দিয়ে থাকে।

৫। ডিমের খোসা

ডিম সিদ্ধ করার পর অনেকেই সিঙ্কের উপর ডিমের খোসা ছাড়িয়ে থাকেন। পরে এই খোসা পানি দিয়ে ড্রেইনে ফেলে দেন। যা ড্রেইন বন্ধ করে দেয়।

৬। প্রোডাক্ট স্টিকার

এই কাজটি কম বেশি অনেকে করে থাকেন। ফল ধোয়ার সময় ফলের গায়ে লেগে থাকা স্টিকার কিচেনের ড্রেইনে ফেলে দেন। এই স্টিকারের কারণেও বন্ধ হয়ে যেতে পারে ড্রেইন।

৭। ওষুধ

ট্যাবলেট, ক্যাপসল জাতীয় ওষুধ ড্রেইন বন্ধ হওয়ার জন্য দায়ী। এইধরনের ওষুধ সিঙ্কে ফেলা থেকে বিরত থাকুন।

সূত্র: ম্যাসড ডট কম

(Visited 1 times, 1 visits today)





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

5 + 3 =

Skip to toolbar