Main Menu

এই ৮টি দারুণ ঘরোয়া স্ন্যাকসই আপনাকে সুস্থ রাখার পক্ষে যথেষ্ট

এমন কোনও স্ন্যাকস কি হতে পারে না যা স্বাস্থ্যকর, সেই সঙ্গে স্বাদেও দারুণ? আলবাৎ পারে। এখানে রইল তেমনই ৮টি স্ন্যাকসের হদিশ—image-36-900x450

স্ন্যাকস বলতেই মনে ভেসে ওঠে একগাদা তেল জবজবে মশলাদার কোনও খাবার, যা আদপে ক্যালোরির খনি। নিয়মিত খেলে শরীরে মেদ বৃদ্ধি একেবারে নিশ্চিত। কিন্তু স্বাদের সঙ্গে স্বাস্থ্যের মেলবন্ধন কী কোনওভাবেই সম্ভব নয়? এমন কোনও স্ন্যাকস কি হতে পারে না যা স্বাস্থ্যকর, সেই সঙ্গে স্বাদেও দারুণ? আলবাৎ পারে। এখানে রইল তেমনই ৮টি স্ন্যাকসের হদিশ—

কনকনে ঠান্ডা আঙুর: এক কাপ ভর্তি আঙুর ডিপ ফ্রিজে রেখে দিন ঘন্টা দু’য়েক। তারপর খেয়ে দেখুন, অনবদ্য তার স্বাদ।

মশলাদার কমলালেবু: একটা কমলালেবুর খোসা ছা়ড়িয়ে কোয়াগুলো আলাদা করে নিয়ে তার উপর ছড়িয়ে দিন দারুচিনি। তারিয়ে তারিয়ে উপভোগ করুন তার স্বাদ।

কলার চিপস: পাতলা করে কলা কেটে পাতিলেবুর রসে ডুবিয়ে হালকা আঁচে মাইক্রোওভেনে বেক করে নিন। ব্যস্, আপনার কলা-চিপস রেডি।

মিষ্টি আলু ভাজা: রাঙা আলু বা মিষ্টি আলু পাতলা করে কেটে তার উপর ছড়িয়ে দিন অল্প অলিভ অয়েল। এবার মাইক্রোওভেনে ৪০০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় ১০ মিনিটের জন্য বেক করুন। অল্প ক্যালোরিযুক্ত সুস্বাদু স্ন্যাকস রে়ডি আপনার জন্য।

শশার স্যালাড: তৈরি করা খু‌ব সহজ। গোল গোল করে কেটে নিন শশা। কুচি করে কাটা দু’চামচ মতো পেঁয়াজ মিশিয়ে দিন তার সঙ্গে। এবার পাতিলেবুর রস আর সামান্য বিট নুন দিয়ে মেখে নিন।

আনারস ভাজা: আনারস কেটে নিন মোটা মোটা করে। এবার মিনিট দু’য়েক সতে করুন। আনারস সোনালি রং ধারণ করলে নামিয়ে নিন।

শশা স্যান্ডউইচ: মিষ্টি পাঁউরুটির দু’টি স্লাইসে চিজ মাখিয়ে নিন। তারপর স্লাইস দু’টির মাঝে কয়েক পিস গোল করে কাটা শশা রেখে দিন। রেডি আপনার শশা স্যান্ডউইচ।

চকোলেট মিল্ক: লো ফ্যাট দুধ নিন এক গ্লাস। তাতে ২ চামচ চকোলেট সিরাপ গুলে নিলেই চকোলেট মিল্ক তৈরি।

(Visited 1 times, 1 visits today)





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

39 + = 44

Skip to toolbar