Main Menu

ছয় দফা নির্দেশনা দিয়ে জঙ্গিসংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের নামে গণমাধ্যমকে হুমকি

ছয় দফা নির্দেশনা দিয়ে জঙ্গিসংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের নামে গণমাধ্যমকে হুমকি দেয়া হয়েছে। সোমবার দুপুরের পর ই-মেইল পাঠিয়ে এ হুমকি দেয়া হয়।এতে গণমাধ্যমকে জেহাদবিরোধী সংবাদ প্রকাশ থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়ে বলা হয়, আমাদের নির্দেশনা আজ থেকে আপনাদের জন্য আইন। ইসলামের পথে না চললে আপনাদের পরিণতি হবে ভয়াবহ। উঁচু উঁচু ভবন সব ধুলায় লুটাবে, আপনাদের শির লুটাবে ইসলামের সেনানিদের পদতলে।download (3)

ansarullahbanglabd@gmail.com  আইডি থেকে পাঠানো বার্তার ওপরে ঠিকানা লেখা হয়েছে আনসারুল্লাহ বাংলা টিম, প্রধান কার্যালয়, চট্টগ্রাম, বাংলাদেশ। শেষে প্রেরকের জায়গায় লেখা হয়েছে আবদুল্লাহ বিন সালিম, প্রচার সমন্বয়ক, আনসারুল্লাহ বাংলা টিম।

ই-মেইলে বলা হয়, নারীদের ঘরের বাইরে চাকরি করা ইসলামী শরীয়াহ মতে শাস্তিযোগ্য অপরাধ। তাই সংবাদমাধ্যমের নারী কর্মীদের চাকরি থেকে অব্যাহতি দিতে হবে। যারা নারীদের চাকুরি দিচ্ছেন, করাচ্ছেন, তারাও সমানভাবে দোষী।

গণমাধ্যমকে উদ্দেশ্য করে বলা হয়, আপনারা যদি নাস্তিক্যবাদীর সহায়তাকারী হন, তবে কাউকে ছাড়া হবে না। আপনাদের বাকস্বাধীনতা যদি আমাদের বেঁধে দেয়া সীমা না মানে তবে আমাদের ক্রোধ প্রকাশের স্বাধীনতার জন্য প্রত্যেক সংবাদ মাধ্যম যেন প্রস্তুত থাকে।

তাদের দাবি, ইসলামবিরোধী, নাস্তিক্যবাদী শক্তির কোনো প্রকার প্রচারণায় শামিল হওয়া যাবে না। ইসলামের সেনানিদের বিরুদ্ধে কোনো প্রকার অপপ্রচার চালানো যাবে না। তাদের যে কোনো জেহাদি কর্মকাণ্ডের সমালোচনা সম্পূর্ণরূপে অগ্রহণযোগ্য এবং নিষিদ্ধ।

পত্রিকার বিজ্ঞাপনে নারী মডেলের ছবি ব্যবহার করা যাবে না এবং কোনো নারীর বেপর্দা ছবি পত্রিকায় ছাপানো যাবে না বলেও ই-মেইলে হুমকি দেয়া হয়।

বিনোদন পাতা, নৃত্য, গীত, নাটক, সিনেমা এমন যে কোনো ইসলামী শরীয়তবিরোধী যা সমাজে ‘ফিতনা’ ছড়ায়, যুবক-যুবতীদের মনে যৌনতা উস্কে দেয় তা প্রকাশ থেকে বিরত থাকতে হবে।

ই-মেইলে আরও হুমকি দিয়ে বলা হয়, যে কোনো নাস্তিকের মৃত্যুর পরে পত্রিকায় কোনো প্রকারের জেহাদবিরোধী সংবাদ করা যাবে না। করলে সে পত্রিকায় চাকুরিরত এবং মালিক পক্ষকে নাস্তিক, নাস্তিক্যবাদের সহায়ক শক্তি হিসেবে গণ্য করে সমূলে উপড়ে ফেলা হবে।

চিঠির শেষের দিকে বলা হয়, আমাদের লক্ষ সেনানী প্রস্তুত হচ্ছে ইসলামের পবিত্র এই ভূমির আনাচে-কানাচে। আমাদের প্রস্তুতি শেষের প্রায় চূড়ান্ত। যে কোনো দিন খেলাফত কায়েমের সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়বো আমরা।

এতে আরো বলা হয়, যেসব ব্লগাররা বিদেশে আছেন তাদের দেশে ফেরার সাথে সাথে, আর যারা দেশের অভ্যন্তরে গা ঢাকা দিয়ে আছেন তাদের সুযোগ পাওয়ার সাথে সাথে হত্যা করা হবে।

ফেইসবুক, ব্লগসহ যে কোনো মাধ্যমে যে আল্লাহ, নবী, রাসুল, সাহাবি, ওলামায়ে কেরাম, মাদ্রাসার শিক্ষক, ধর্মপ্রাণ মুসলমান, উম্মুল মোমেনিনদের চরিত্র দিয়ে প্রশ্ন তুলবে, বাজে কথা বলবে তার আজরাইল হিসেবে রাব্বুল আলামিন আমাদের প্রেরণ করবেন। সুযোগ পাওয়া মাত্র ইসলামের বীর সেনানিরা তাদের কতল করবে বলেও ই-মেইলে হুমকি দেয়া হয়।

এ বিষয়ে ঢাকা মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (মিডিয়া) মুনতাসিরুল ইসলাম বলেন, বিভিন্ন পত্রিকায় আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের ই-মেইলের খবরটি আমরা জানতে পেরেছি। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। বিষয়টি আমরা পর্যবেক্ষণ করছি। কারা এর পিছনে, কোথা থেকে এসেছে তা তদন্ত করা হচ্ছে।

 

(Visited 1 times, 1 visits today)





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

+ 81 = 82

Skip to toolbar