Main Menu

ঢাকা-ব্যাংকক-ঢাকা রুটে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের নতুন অফার…..

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স বাংলাদেশের অন্যতম বেসরকারি বিমান সংস্থা। প্রতিষ্ঠার শুরু থেকেই আন্তর্জাতিক মান সম্পন্ন সেবার মাধ্যমে যাত্রী সাধারণের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হয়েছে। তুলনামূলক কম ভাড়ায় আকাশ পথে ভ্রমণে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক রুটে যাত্রীদের মধ্যে আস্থা অর্জন করতে পেরেছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। ৩ মে থেকে সপ্তাহে চারদিন ঢাকা-ব্যাংকক রুটে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করেছে। পর্যটকদের চাহিদা ও প্রতিযোগিতামূলক ভাড়ায় সব শ্রেণীর যাত্রীদের আকৃষ্ট করতে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স ঢাকা-ব্যাংকক-ঢাকা রুটে মাত্র ২০,০০০ টাকায় আকর্ষণীয় রিটার্ন ভাড়া ঘোষণা করেছে। ভাড়ায় সকল প্রকার ট্যাক্স ও সারচার্জ অন্তর্ভুক্ত।

৮টি বিজনেস ক্লাসসহ মোট ১৬৪ আসনের বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট দিয়ে সপ্তাহে প্রতি সোম, বুধ, শুক্র ও শনিবার সকাল ৯টা ৪০ মিনিটে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ব্যাংককের উদ্দেশ্যে ফ্লাইট ছেড়ে যায়। এবং স্থানীয় সময় দুপুর ১টা ১০ মিনিটে ব্যাংককের সুবর্ণভূমি আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে অবতরণ করে। পুনরায় ব্যাংকক থেকে স্থানীয় সময় দুপুর ২টা ১০ মিনিটে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা করে এবং বিকাল ৩টা ৪০ মিনিটে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে অবতরণ করে।

বর্তমানে ইউএস-বাংলা অভ্যন্তরীণ সকল রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করছে এবং আন্তর্জাতিক পরিসরে ঢাকা থেকে কাঠমান্ডু, কলকাতা, মাস্কাট, কুয়ালালামপুর, সিঙ্গাপুর, ব্যাংকক এবং চট্টগ্রাম থেকে কলকাতা ও মাস্কাট রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করছে।

ইউএস-বাংলা’র যাত্রা শুরু পর থেকে এখন পর্যন্ত প্রায় ৩০ হাজার ফ্লাইট পরিচালনা করেছে, যা বাংলাদেশের ইতিহাসে সময়ের প্রেক্ষাপটে একটি রেকর্ড। বর্তমানে তিনটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ ও তিনটি ড্যাশ ৮-কিউ ৪০০ এয়ারক্রাফট রয়েছে বিমান বহরে। চলতি বছর আগস্ট মাসের মধ্যে আরো দুইটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এবং একটি ড্যাশ ৮-কিউ ৪০০ এয়ারক্রাফট বহরে যুক্ত করার পরিকল্পনা রয়েছে। এ ছাড়া এ বছরের মধ্যে দোহা, দাম্মাম, রিয়াদ, চেন্নাই, দিল্লী, আবুধাবি রুটে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স।

(Visited 1 times, 1 visits today)





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

72 − = 71

Skip to toolbar