Main Menu

পুঁজিবাজারে পতন গড়াল ছয় দিনে….

পুঁজিবাজারে শেয়ার ও ইউনিটের দরপতন গড়াল ছয় কার্যদিবসে। এ ছয় দিনে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স কমেছে ১৩১ পয়েন্ট। ডিএসইর পাশাপাশি চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) চলছে এই পতন। তবে আর্থিক লেনদেন ওঠানামার মধ্যে রয়েছে। গতকাল ডিএসইতে আগের দিনের তুলনায় লেনদেন কমেছে সাড়ে আট শতাংশের কিছু বেশি।
তবে এ দরপতন ধীরে ধীরে হওয়াকে স্বাভাবিক মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। তবে এ ক্ষেত্রে ব্যাংক খাত নিয়ামক ভূমিকা পালন করছে বলেও তারা মনে করছেন।
গত ৪ এপ্রিল ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ছিল ৫৭৭৭ পয়েন্ট। যা সূচকটির যাত্রার প্রায় ৪ বছর আড়াই মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ ছিল। তবে এরপর থেকে টানা ৬ কার্যদিবস ধরে পতনে রয়েছে। যা গতকাল বুধবার লেনদেন শেষে দাঁড়িয়েছে ৫৬৪৬ পয়েন্টে। এ হিসাবে সূচক কমেছে ১৩১ পয়েন্ট। গতকাল এ সূচক কমেছে ৩৭ পয়েন্ট। যা আগের দিন মঙ্গলবার ৬ পয়েন্ট, সোমবার ১১ পয়েন্ট, রোববার ৩৬ পয়েন্ট, বৃহস্পতিবার ২১ পয়েন্ট ও বুধবার ২০ পয়েন্ট কমেছিল।
মূল্যসূচকে টানা পতন হলেও ওঠা-নামার মধ্যে রয়েছে আর্থিক লেনদেন। গতকাল ডিএসইতে ৭১৪ কোটি ৮৪ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। যা আগের দিন হয়েছিল ৭৮২ কোটি ৬২ লাখ টাকার। এ হিসাবে লেনদেন কমেছে ৬৭ কোটি ৭৮ লাখ টাকা বা ৮ দশমিক ৬৬ শতাংশ।
এ দিন ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩২৭টি কোম্পানির মধ্যে ১২০টি বা ৩৬ দশমিক ৭০ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। অন্যদিকে দাম কমেছে ১৭০টি বা ৫১ দশমিক ৯৯ শতাংশ কোম্পানির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৭টি বা ১১ দশমিক ৩১ শতাংশ কোম্পানির।
অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সিএসসিএক্স মূল্যসূচক ৬১ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১০৬০৮ পয়েন্টে। বাজারটিতে ৪৭ কোটি ২৫ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। লেনদেন হওয়া ২৩৭টি ইস্যুর মধ্যে দাম বেড়েছে ৮৭টির, কমেছে ১১৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৫টির।
এ প্রসঙ্গে পুঁজিবাজার বিশ্লেষক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আবু আহমেদ বলেন, আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। এটি বাজারের স্বাভাবিক সংশোধন বলেই আমার ধারণা। ব্যাংক খাতের কারণেই কিছুদিন আগে সূচক বেড়েছিল। সেই ব্যাংক খাতের সংশোধনের ফলেই মূল সূচকে সংশোধন হচ্ছে।

(Visited 1 times, 1 visits today)





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

15 − 12 =

Skip to toolbar