Main Menu

প্রেম, বিয়ে, দাম্পত্য ও পরকীয়া সবই বলে দিবে হাত

হাতের রেখা দেখে বলে দেয়া জ্যোতিষীর কথা আমরা অনেই বিশ্বাস করি। আবার অনেকেই করি না। তবে কনিষ্ঠ আঙুলের নীচে বেরোনো বিয়ের রেখাটা সম্পর্কে আমরা অনেকেই অবগত।x64

এই বিয়ের রেখা বিয়ে ছাড়াও অনেক কিছু বলে দিতে পারে? আপনার প্রেমের বিয়ে নাকি দেখেশুনে, বেশি বয়সে বিয়ে, না তাড়াতাড়ি, বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কে জাড়াবেন কি না, বা বিচ্ছেদের সম্ভাবনা কতটা, সব বলা যায় এই বিবাহ রেখা দেখে।

১. হৃদয় রেখার সঙ্গে বিবাহ রেখার একটা সম্পর্ক রয়েছে। বিবাহ রেখা ও হৃদয় রেখার মধ্যে দূরত্ব যার যত কম, তাঁর বিয়ে তত অল্পবয়সে। এই দুই রেখার মধ্যে দূরত্ব বাড়লে, বিয়ে তত বেশি বয়সে।

বিবাহ রেখার শুরুতেই যদি শাখার মতো লাইন বেরোয়, এবং যদি সেটা দু-হাতেই থাকে বিয়ে না-টেকার সম্ভাবনা প্রবল।

৩. মহিলাদের ক্ষেত্রে বিবাহ রেখার শুরুতেই যদি ‘দ্বীপের’ মতো চিহ্ন থাকে, তা হলে তাঁর বিয়ে সুষ্ঠু ভাবে সম্পন্ন না-হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। প্রেমে প্রতারিত হতে পারেন। স্বামীর স্বাস্থ্য ভালো যাবে না।

৪. দুটো বিবাহ রেখা হাতে স্পষ্ট হলে এবং তা যদি পরস্পরের সমান্তরালে থাকে, এটাও কিন্তু বিবাহ বিচ্ছেদের ইঙ্গিতবাহী। যদি বিবাহ বিচ্ছেদ নাও হয়, কোনও কারণে ওই ব্যক্তির দু-বার বিয়ে হতে পারে।

৫. সমান্তরাল রেখাটি যদি বিবাহ রেখার সঙ্গে প্রায় গায়ে গায়ে ঘনিষ্ঠ ভাবে থাকে, তার মানে, বিয়ের আগে ওই ব্যক্তির কারও সঙ্গে সম্পর্ক ছিল বলে ধরে নেওয়া যেতে পারে। বিয়ের পরেও তাঁরা পরকীয়ায় জড়াবেন।

৬. বিবাহ রেখা বাঁক নিয়ে যদি হৃদয়ে রেখায় গিয়ে মেশে, সেই ব্যক্তির লাভ ম্যারেজের সম্ভাবনাই বেশি। তবে, ব্রেকআপের আশঙ্কাও পাশাপাশি থাকবে। এমনকী সঙ্গীর অকস্মাত্‍‌ দুর্ঘটনায় প্রাণহানিও হতে পারে। সঙ্গীর মৃত্যু বা অন্য যে কোনও কারণে এই ব্রেকআপ হতে পারে।

৭. বিবাহ রেখা যদি হৃদয় রেখায় এসে মেশে, এবং ঠিক তার উপরেই সমান্তরাল একটা বিবাহরেখা হাতে থাকে, এটা প্রথম রিলেশন অর্থাৎ‌ প্রেম ভাঙার স্পষ্ট ইঙ্গিত।

৮. বিবাহ রেখার শেষে যদি < চিহ্ন থাকে, এটাও কিন্তু বিচ্ছেদেরই ইঙ্গিত দিচ্ছে। এই < চিহ্নটি ছোট হলে, সাময়িক বিচ্ছেদ। আর বড় হলে, ছাড়াছাড়ি হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। মাতান্তর বা বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের কারণেই এই ব্রেকআপ হতে পারে।

৯. < চিহ্নটির পর যদি বিবাহরেখা শুরু হয়, সেই ব্যক্তির ব্যাপক ভোগান্তি আছে। পছন্দের পাত্র বা পাত্রী পাওয়া দুষ্কর। বিয়ে না-হওয়াটাও কিন্তু অস্বাভাবিক নয়। আর বিয়ে হলেও, প্রথম পর্যায়টা নানা সমস্যায় জর্জরিত হতে হবে।

১০. বিয়ের রেখার শেষে থাকা < চিহ্নের একটি বাহু যদি হৃদয়রেখাকে গিয়ে ছোঁয়, সেই ব্যক্তি নিশ্চিত ভাবেই বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কে জড়াবেন। এমনকী নিজের স্বজনের সঙ্গেও শারীরিক সম্পর্ক হতে পারে। ফলে, বিয়ে ভাঙার ঝুঁকিও থাকছে।

(Visited 1 times, 1 visits today)





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

13 + = 23

Skip to toolbar