Main Menu

ভালবাসার দিনে ভালবাসার কথা

খন্দকার ইউনুস ফাহাদঃ

রোম সাম্রাজ্যের প্রভাবশালী শাসক ছিলেন সম্রাট ক্লডিয়াস।দক্ষ সেনাবাহিনী গড়ে তোলার লক্ষ্যে যুবকদের প্রেম-ভালবাসা,প্রীতি এমনকি বিয়ে পর্যন্ত নিষিদ্ধ করেছিলেন।সেনাবাহিনীতে এসে পরিবার পরিজন অর্থাৎ প্রিয়জনের প্রতি মানুষের পিছুটানকে দূর করাই ছিল এই শাসকের মূল উদ্দেশ্য।তখন ভালবাসার মানুষগুলো হয়ে উঠে কন্ঠহীন।প্রেমের চিঠিগুলো হয় ভাষাহীন।সেন্ট ভ্যালেন্টাইন নামক এক প্রেমিকযোদ্ধা এই নীতির বিপক্ষে গেলে তাঁর ঠিকানা হয় চার দেয়াল।দিনের পর দিন মুক্তির জন্য হাজার হাজার তরুণ-তরুণী ভীড় করে সেন্টকে অত্যাচারের শিকল থেকে বের করতে।১৪ ই ফেব্রুয়ারি বন্দী অবস্থায় রহস্যজনক মৃত্য ঘটে সেন্ট ভ্যালেন্টাইনের।প্রিয়তমার উদ্দ্যেশে তাঁর ভালবাসার শেষ চিহ্ন ছিল শুধুমাত্র একটি ক্ষুদে বার্তা।বার্তায় লেখা পাওয়া যায় “লাভ ফ্রম ইউর ভ্যালেন্টাইন”।দিনটি কে সবাই ভুলে যেতে চাইলেও ৪৯৬ খ্রিষ্টাব্দের ১৪ ফেব্রুয়ারী এই করুন কাহিনীর স্মরণে পোপ জুলিয়াস প্রথা করেন আজকের এই ভ্যালেনটাইন ডে বা ভালবাসা দিবস।ব্রিটেন,কানাডা,ইতালি ও চীনে ব্যাপক আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালন করতে দেখা যায় এই দিনটিকে।সংস্কৃতির বিবর্তনে হাওয়া লেগেছে আমাদের দেশেও।তবে উগ্রফ্যাশন হিসেবে নয় সেন্টের ভালবাসার প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হোক সকলের মূল উদ্দেশ্য।ইতিহাসের ভাঁজে থেকে যাবে সেন্ট তবে আপনিও থাকতে পারেন প্রিয় মানুষের স্মৃতির পাতায়!আপনার প্রিয় বন্ধুকে ভাল লাগে?বলতে পারছেন না?ভাবছেন বন্ধুত্বে ফাটল ধরবে!কে জানে সেও হয়তো আপনার বলার অপেক্ষায়!ভালবাসার সাহস নিয়ে ভাল লাগার কথাগুলো বলে দিন।ভালবাসার কথা শুনে লজ্জাবতী নিশ্চয়ই মুখ ঢাকবে চোখের আড়ালে!প্রিয়জনের ভাষা বুঝে নেওয়াটা ভালবাসার অনন্য এক গুণ।ভালবাসি কথাটা কখনো পুরনো হয় না।শুধুমাত্র নতুন যুগলরাই ভালবাসার কথা বলবে বিষয়টা কিন্তু মোটেও সেরকম নয়।রাগ অভিমানে কাছের মানুষ দূরে চলে গেছে?মন খারাপ না করে ফোনটা হাতে নিয়ে ডায়াল করতে পারেন।রাগের মাথায় ফোনবুক থেকে নাম্বারও মুছে দিয়েছিলেন?একটু কস্ট করে ইনবক্স থেকে ঘুরে আসলে কোথাও না কোথাও একটা মিষ্টি ক্ষুদে বার্তা পেয়ে যাবেন।আজকের দিনে প্রিয়জনের ফোন পেয়ে অভিমান কেটে যেতে পারে যে কারও!ভাবছেন নিজে ছোট হয়ে যাবেন?গভীর ভালবাসায় এই ভাবনাটা অনেক ছোট মনের পরিচায়ক।অশ্রু যদি নাই ঝরে,ভালবাসা তবে হয় কি করে!শুনেছি পানির কোন রং নেই!যখন যে পাত্রে রাখা হয় সেই রূপ ধারন করে।ভালবাসারও নিজস্ব কোন রং নেই যখন যে যেভাবে ভালবাসাকে রাঙ্গাতে চায় ভালবাসাও ঠিক সেই রঙ্গে রঙিন হয়।তাহলে পানির অপর নাম জীবন হলে ভালবাসার অপর নাম মরন হবে কেন?ভালবাসুন মন দিয়ে কাছে টাটুন দিন গুণে,এই তো এলো ভালবাসার দিন!ভালবাসার দিনে ভালবাসার কথা হোক কানে কানে।।

(Visited 1 times, 1 visits today)





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

4 + 5 =

Skip to toolbar