Main Menu

মডেল এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ( এমএবি) এর যাত্রা শুরু

আফজালুর ফেরদৌস রুমন : বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের ঐতিহ্য এবং সংস্কৃতি ফ্যাশন শিল্পের মাধ্যমে তুলে ধরার একটি পদক্ষেপ হিসেবে বাংলাদেশের জনপ্রিয় এবং দক্ষ মডেলদের একটি উদ্যোগ হিসেবে মডেল ইন্সটিটিউট অব বাংলাদেশ নামে একটি এসোসিয়েশন গতকাল শনিবার তাদের যাত্রা শুরু করেছে। রাজধানী ঢাকার একটি জনপ্রিয় রেস্টুরেন্ট ‘হটস্পট মিরেজ’ এ এই এসোসিয়েশনের সদস্যরা একত্রিত হয়ে মডেল এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (এমএবি) র কার্যক্রম শুরুর ঘোষনা দিয়েছেন। বাংলাদেশের ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় এবং সফল প্রায় ২০ জন মডেলের একত্রিত হয়ে নেয়া এই উদ্যোগ সামনের সময়ে দেশে এবং বিদেশে আলাদা একটি জায়গা করে নিতে সক্ষম হবে বলেই ধারনা করা হচ্ছে। ‘এমএবি’ র এই আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন আজিম উদ দৌলা, নিবির আদনান নাহিদ, রাজ ম্যানিয়া, ফারহান শাহেদ, শাহরিয়ার নূর জনি, আমান সাবিত, রনি ইমরান,ফয়সাল খান,ফজলে রাব্বি খান, রিফাত আব্দুল্লাহ, শাহজাদ ওমর, এমডি নিহাফ সহ আরো অনেকে। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রি নাটক, চলচ্চিত্র, মঞ্চের মতো সাংস্কৃতিক মাধ্যমগুলোতে নানা রকম সংগঠন আছে। যা এই মাধ্যমের পেশাদার শিল্পীদের নানা রকম দিক নিয়ে কাজ করে। নতুন যারা কাজ করতে চায় তাদের গাইড করা, এছাড়া সদস্যদের ভালো-মন্দ দিক খেয়াল করা সহ আরো অনেক গুরুত্বপূর্ণ দিক নিয়ে কাজ করে। সরকারি ভাবেও এসব মাধ্যমের জন্য নানা রকম পদক্ষেপ নিতে লক্ষ্য করা যায়। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে, আমাদের দেশে ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রি বা মডেলদের জন্য এরকম কোন সংগঠন বা কিছু নাই। আন্তর্জাতিক অংগনে বাংলাদেরশের নাম উজ্জ্বল করার এই মাধ্যমে পেশাদারিত্ব নিয়ে কাজ করার অংশ হিসেবে এমএবি র যাত্রা শুরু হলো। যেটি ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রিকে শক্তিশালী এবং সম্ভাবনা ময় একটি সংস্কৃতি সংস্থা হিসেবে গড়ে তুলবে বলে আশা করছেন এই এসোসিয়েশনে যুক্ত মডেলরা। অনুষ্ঠানে অনেকেই বক্তব্য রাখেন এই ‘এমএবি’র নানা দিক তুলে ধরার জন্য। বাংলাদেশের এই সময়ের অন্যতম সেরা জনপ্রিয় মডেল নাহিদ বলেন- ‘আমরা আজ এমএবি এর প্রথম সমাবেশ আয়োজন করতে পেরে আনন্দিত। বাংলাদেশের শীর্ষ সব মডেল একত্রিত হয়ে একটি অত্যন্ত প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিয়েছি। যা সামনে আমাদের ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। আমি আশা করি প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশের সকল মডেলের উন্নয়নে সহায়তা করবে। নারী-পুরুষ সকল মডেলই এই সংগঠন থেকে নানা রকম সহযোগিতা এবং গাইডলাইন পাবেন যা এই সেক্টর কে এগিয়ে নিয়ে যাবে। আরেক জনপ্রিয় মডেল জাহিদুর রহমান রিপন নিজের মতামত প্রকাশ করতে যেয়ে বলেন- এটা আরো আগেই হওয়া খুব দরকার ছিল। এটার মাধ্যমে এজেন্সি বা মডেল কোঅর্ডিনেটারদের হয়রানি যেমন কমবে তেমনি নতুন বা পুরাতন সকল মডেলই যোগ্যতা অনুযায়ী সম্মান এবং সম্মানী পাবেন। এরকম একটা এসোসিয়েশনে যুক্ত হতে পেরে স্বাভাবিকভাবেই আনন্দিত তিনি। স্বাধীন বাংলাদেশের নাগরিক হিসেবে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের সংস্কৃতি তুলে ধরার প্রয়াস হিসেবে ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রিও একদিন নাম উজ্জ্বল করবে বাংলাদেশের। এমনটাই আশা এই সংগঠনের সাথে সংশ্লিষ্ট সকলের। বাংলাদেশের মডেল এবং এই দেশের ফ্যাশন জয় করবেআন্তর্জাতিক অংগন এটাই ‘এমএবি’ র প্রধান লক্ষ্য হবে। শুভকামনা রইলো এই নতুন এসোসিয়েশনের জন্য।

(Visited 1 times, 1 visits today)





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

+ 40 = 46

Skip to toolbar